সেমাই রেসিপি – মজাদার ১২টি সেমাই রেসিপি দেখে নিন

সেমাই রেসিপি – মজাদার ১২টি সেমাই রেসিপি দেখে নিন
5 (100%) 3 votes

সেমাই রেসিপি অনেক সুস্বাদু খাবার এবং সেমাই রান্না খুব সহজ। ঈদ ছাড়াও এখন বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সেমাই রান্না হয়। মজার কথা হচ্ছে, গত ৩০ বছর আগেও হালকা অবস্থাপন্ন পরিবারে সেমাই বানানোর মেশিন থাকত! এখন অনেকে এটা বললে হাসবে! ঘরে সেমাই বানানোর মেশিন! আসলে আগে মেহমান আসলেই তাকে সেমাই খাওয়ানো হত এবং এটা একটা ঐতিহ্য হিসাবে ধরা হত। ঈদ তো সেমাই ছাড়া ভাবাই যায় না। অনেকে আবার ঈদে দুধ সেমাই রেসিপি,সেমাইয়ের জর্দা রেসিপি,লাচ্ছা সেমাই,এমনকি ঝাল সেমাই ও রান্না করে থাকেন। প্যাকেটজাত এই খাবারটির স্বাদ রান্নার পর কমবেশি সবারই একই রকম হয়। আচ্ছা,এমন কিছু রেসিপি কী জানতে চান যাতে আপনার সাদামাটা লাচ্ছা সেমাইটাই হয়ে উঠবে দারুণ বিশেষ? এত দারুণ যে সেমাইয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে উঠবেন সবাই? আসুন, আজ জানবো সাদামাটা সেমাই রেসিপি কিভাবে আরো অসাধারণ এবং সুস্বাদু করা যায়।

সেমাই রেসিপি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

সেমাই রেসিপি

সেমাই রেসিপি সেমাইয়ের কুনাফা

উপকরণ :
লাচ্ছা সেমাই ১ প্যাকেট
তরল দুধ আধা কেজি
কর্ণফ্লাওয়ার ২টেবিল চামচ
ঘি আধা টেবিল চামচ
রোজ এসেন্স কয়েক ফোটা
চিনি স্বাদমত
কাঠবাদাম কুচি, চেরি কুচি
সিরার জন্য-চিনি আধা কাপ
পানি আধা কাপের কম
লেবুর রস আধা চা চামচ
সিরা বানিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন।

প্রণালী : দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে ৩০০গ্রাম পরিমানে এনে কর্ণফ্লাওয়ার পানির সাথে মিশিয়ে দুধে দিনচিনি, রোজ এসেন্স দিন ঘন না হওয়া পর্যন্ত নাড়ুন ঘন ঘন নাড়বেন নয়তো পুড়ে যাবে নিচে ক্ষিরসা হয়ে গেলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করুন একটা বেকিং ডিসে ঘি গরম করে সেমাই অর্ধেক বিছান এর উপর ক্ষিরসা দিয়ে আবার সেমাই দিন প্রিহিট ওভেনে ১৯০ ডিগ্রিতে বেক করুন ১৫মিঃ উপরে সুন্দর কালার হলে নামিয়ে নিন উপরে পেস্তা গুড়া, বাদাম কুচি দিয়ে কেটে চিনির সিরা দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার সেমাই রেসিপি সেমাইয়ের কুনাফা। ইচ্ছা হলে চিনির সিরা ছাড়াও খেতে পারেন।

সেমাই রেসিপি

ডিম সেমাই রেসিপি

সেমাই তো আমরা সবাই খাই বিশেষ করে ঈদের সময়। তাছাড়া মাঝে মাঝে ঘরোয়া আয়জনেও খেয়ে থাকি। আর তাই সবাই সেমাই রান্না করতে জানি। কিন্তু ডিম সেমাই রেসিপি তৈরি করেছেন কি কখনো?

উপকরণ :
সেমাই ৪ কাপ
ঘি আধা কাপ
এলাচ ৩টি
পানি ২ কাপ
ডিম ২টা
ধনে পাতা ২ টেবিল চামচ
লবণ পরিমাণ মতো
চিনে পরিমাণ মতো

প্রণালী : ডিম ফেটিয়ে লবণ মিশিয়ে একটি কাপে রাখুন। সেমাই ভেজে নিয়ে একটি পাত্রে রাখুন। এরপর অন্য পাত্রে গরম পানিতে এলাচ লবণ দিয়ে ঘিয়ে ভাজা সেমাই সিদ্ধ করে পানি শুকিয়ে আসলে ডিম দিয়ে নাড়ুন। ডিম জমাট বাঁধলে সেমাইর উপর ধনে পাতা ছিটিয়ে দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

সেমাই রেসিপি

পায়েস সেমাই রেসিপি

উপকরণ : দুধ ১ কেজি, চিনি আধা কাপ, সেমাই ১ কাপ, নারকেল চার ভাগের এক কাপ, ঘি (ভাজার জন্য) সামান্য, কিসমিস ২ চা চামচ, মাওয়া (গ্রেট করা) ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী : সেমাই সামান্য ঘি দিয়ে ভেজে নিন। একটি পাত্রে চুলায় দুধ জ্বাল দিন। দুধ একটু গরম হয়ে এলে তাতে চিনি ও সেমাই দিয়ে দিন। ৫ মিনিট রান্না করুন। এবার নারকেল দিয়ে আর ৫ মিনিট রান্না করুন। ঠান্ডা হলে সার্ভিং ডিসে ঢেলে কিসমিস ও গ্রেট করা মাওয়া ছড়িয়ে পরিবেশন করুন মজাদার পায়েস সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

সুস্বাদু মালাই সেমাই রেসিপি

বাসায় মেহমান আসলে বা বিশেষ দিনে সেমাই রেসিপি যদি একটু ভিন্ন উপায়ে রান্না করা যায়, তাহলে সেমাইটিও বিশেষ হয়ে ওঠে।

উপকরণ:
দুধ দুই লিটার
লাল সেমাই এক কাপ
চিনি আধা কাপ
কনডেন্সড মিল্ক এক কাপ
এলাচ ও দারুচিনি চারটি
ঘি এক  চা চামচ
বাদাম কুচি এবং কিশমিশ

প্রণালী: প্রথমে দুধ মৃদু আঁচে রেখে এলাচ আর দারুচিনি সহ জ্বাল দিয়ে ঘন করে ফেলুন। এখন চিনি দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন। এরপর ঘিয়ে সেমাই অল্প আঁচে লাল লাল করে ভেজে নিন। খেয়াল রাখবেন, বেশি ভাজা করলে খেতে ভালো লাগবে না।

এখন তৈরি করা দুধের মালাইয়ের সঙ্গে সেমাই মিশিয়ে কিছুক্ষণ মৃদু আঁচে রাখুন। নামিয়ে ঠান্ডা করুন দেখবেন,সেমাই ঘন হয়ে যাবে। বাদাম কুচি ও কিশমিশ দিয়ে সাজিয়ে ঠান্ডা পরিবেশন করুন।

সেমাই রেসিপি

লাড্ডু মালাই সেমাই রেসিপি

উপকরণ :
লাচ্ছা সেমাই ২০০ গ্রামের ১ প্যাকেট
কেওড়ার জল ১ চা চামচ
বাদামকুচি আধা কাপ
কিশমিশ ৪ টেবিল চামচ
নারিকেল গুঁড়া ৩ টেবিল চামচ
ঘি ২ টেবিল চামচ
কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ
এলাচ গুঁড়া আধা চা চামচ

প্রণালী : প্রথমে একটা কড়াইয়ে সেমাই আর ঘি দিয়ে অল্প আঁচে সোনালি এবং মচমচে করে ভাজতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন সেমাই পুড়ে না যায়।

সেমাই সোনালি করে ভাজা হলে এর মধ্যে বাদামকুচি, কিশমিশ, এলাচ গুঁড়া, শুকনা নারিকেল গুঁড়া দিয়ে এক, দুই মিনিট ভাজতে হবে। তারপর ভাজা সেমাইয়ের মধ্যে কনডেন্সড মিল্ক এবং কেওড়ার জল দিয়ে নেড়ে ভালো করে মিশিয়ে দিন এবং চুলার আঁচ কিছুটা বাড়িয়ে দুই তিন মিনিট ভাজুন। যখন কনডেন্সড মিল্ক কিছুটা শুকিয়ে সেমাইয়ের মিশ্রণ আঠালো হয়ে আসবে তখন নামিয়ে ফেলুন লাড্ডু মালাই সেমাই রেসিপি।

কিছুক্ষণ ঠাণ্ডা করুন। একদম ঠাণ্ডা করা যাবে না। একটু গরম থাকতেই পছন্দ মতো আকারের লাড্ডু বানিয়ে ফেলতে হবে। লাড্ডু ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন। মনে রাখবেন,সেমাইতে কনডেন্স মিল্ক দেওয়ার পর বেশিক্ষণ চুলায় রেখে রান্না করলে সেমাইটা নরম হয়ে যাবে। লাড্ডু বানানোর পর মচমচে ভাবটা আর থাকবে না।

সেমাই রেসিপি

ঝুড়ঝুড়ে স্বাদে লাচ্ছা সেমাই রেসিপি

উপকরণ :
সেমাই ২ কাপ
সাদা এলাচ ২ টি
দারচিনি ২ ফালি
তেজপাতা  ২ টি
ঘি ৩ চা চামচ
চিনি পরিমাণ মতো

প্রণালি : একটি ফ্রাইপ্যানে ২ চা চামচ ঘি দিন। ঘি গলে গেলে তেজপাতা, দারচিনি ও সাদা এলাচ দিয়ে নাড়তে থাকুন। এরপর ঝুড়নো লাচ্ছা গুলো দিয়ে মাঝারী আঁচে নেড়ে নেড়ে খুব ভাল করে ভাজতে থাকুন। লাল লাল করে ভাজা হলে চিনি দিয়ে আবার ভাজুন। এবার বাকী এক চা চামচ ঘি দিয়ে আবারও নাড়ুন। ভালো ভাবে ভাজা হলে নামিয়ে পাত্রে ঢালুন। সুন্দর পাত্রে ঢেলে পরিবেশন করুন ঝুড়ঝুড়ে সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

সাধারণ লাচ্ছা সেমাই রেসিপি

উপকরণ :
দুধ ২ লিটার
লাচ্ছা সেমাই ১ প্যাকেট
গুঁড়ো দুধ ৫ টেবিল চামচ
চিনি স্বাদ মতো
এলাচ দারুচিনি কয়েকটি
লবণ এক চিমটি
কিসমিস এক মুঠো
বাদাম কুচি ইচ্ছা মতো
ঘি দুই টেবিল চামচ
দুধের সর আধা কাপ

প্রণালি : দুই লিটার দুধকে জ্বাল দিয়ে এক লিটার করে ফেলুন। এলাচ দারুচিনি দিয়ে জ্বাল দিন। উপরে ঘন সর জমবে, সেটাকে তুলে রাখুন আলাদা করে।

এবার দুধে চিনি মেশান। এবং খানিকটা দুধ তুলে নিয়ে সেই দুধের মাঝেই পাউডার মিল্ক গুলিয়ে নিন। গোলানো গুঁড়ো দুধ আবার আসল দুধের সাথে মিশিয়ে দিন। এক চিমটি লবণ দিন। ব্যাস, তৈরি আপনার সেমাইয়ের জন্য গুঁড়ো দুধ।

এবার প্যানে ঘি গরম করুন। ঘিয়ের মাঝে লাচ্ছা সেমাই দিয়ে দিন। সাথে বাদাম ও কিসমিসও দিয়ে দিন। খুব অল্প আঁচে ভাজবেন, কেবল ঘিয়ের ফ্লেভারটা সেমাইতে যাওয়া চাই। হালকা লাল হলেই নামিয়ে ফেলুন। নেড়েচেড়ে খুব ভালো করে ভাজবেন।

এবার সেমাইটা বাটিতে সাজিয়ে নিন। এবার গরম দুধ সেমাইয়ের ওপরে ছড়িয়ে দিন। সবটুকু দুধ দেবেন না। ৪ ভাগের ৩ ভাগ দুধ দিন। এবং কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। দেখবেন সেমাই সমস্ত দুধ টেনে নিয়ে ড্রাই হয়ে গিয়েছে। এবার তুলে রাখে দুধের সর ওপরে ছড়িয়ে দিন। এবং বাকি দুধটুকু দিন। একসাথে পুরো দুধ দিয়ে ফেললে সেমাই পুরোটাই টেনে নেবে। ব্যাস, এবার চেখে দেখুন অনন্য স্বাদের এক লাচ্ছা সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

চালের সেমাই রেসিপি

হাতে বানানো সেমাইয়ের এক সময় খুব প্রচলন ছিল আমাদের দেশে। হাতে বানানো চালের সেমাই সকলের খুব পছন্দ। আজকে জেনে নিন চালের সেমাই রেসিপি তৈরির নিয়ম।

সেমাই তৈরির জন্য : চালের গুঁড়া ২ কাপ (সদ্য গুঁড়া করা)। লবণ প্রয়োজন মতো।

সদ্য করা চালের গুঁড়া ফুটন্ত গরম পানিতে দিয়ে দিন। সঙ্গে লবণ দিয়ে নেড়ে নেড়ে কাই তৈরি করে নিন। কাই অনেক্ষণ ধরে মাখিয়ে নরম করুন।

এবার হাত দিয়ে ইচ্ছা মতো আকার দিয়ে সেমাই বানিয়ে নিন। তারপর শুকিয়ে রেখেও খেতে পারেন আবার সঙ্গে সঙ্গে রান্না করেও খেতে পারেন।

সেমাই রান্নার জন্য : সেমাই ১ কাপ। দুধ আধা লিটার। ঘন দুধ অথবা মালাই ১ কাপ। আস্ত এলাচ ২, ৩ টি। তেজপাতা ২টি। কিসমিস ১ টেবিল চামচ। চিনি স্বাদ মতো। পেস্তা বাদাম ইচ্ছা মতো।

প্রণালী : দুধে আস্ত এলাচ ও তেজপাতা দিয়ে চুলায় বসান। দুধ ফুটতে ফুটতে সুন্দর গন্ধ বের হলে চিনি দিন। ফুটে ওঠা পর্যন্ত নাড়তে থাকুন।

এবার অল্প অল্প করে ১ কাপ সেমাই দিয়ে নেড়ে দিন যেন জমাট বেঁধে না যায়। কিশমিশ দিয়ে নাড়তে থাকুন।

সেমাই সিদ্ধ হয়ে দুধ ঘন হয়ে এলে আগে থেকে করে রাখা ঘন দুধ অথবা মালাইটুকু দিয়ে আঁচ একদম কমিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন যেন নিচে না লেগে যায়। হয়ে গেলে পেস্তা বাদাম দিয়ে পরিবেশন করুন চালের সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

মালাই ক্ষীরের সেমাই রেসিপি

উপকরণ : দুধ দেড় লিটার,চিনি পরিমান মতো,মালাই আধা কাপ,কাজু,কিসমিস, পেস্তা,কাঠবাদাম আধা কাপ,সেমাই এক কাপ,এলাচ,দারুচিনি ৬/৭,ঘি ২ টেবিল চামচ,জাফরান সামান্য।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে বাদাম গুলো খোসা ছাড়িয়ে মোটা কুচি করে নিন। এরপর দের লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে অর্ধেকের কম পরিমাণ করে রাখুন। এবার প্যানে ঘি দিয়ে গরম করুন। এরপর এলাচ দারুচিনি দিয়ে একটু ভাজুন। এবার বাদাম কুচি, কিসমিস ও সেমাই দিয়ে দিন। মৃদু আঁচে হালকা ভাজুন। ঘ্রান ছাড়লেই ঘন দুধ দিয়ে দিন। নেড়ে নেড়ে রান্না করুন। সেমাই সিদ্ধ হয়ে আসার সাথে সাথে দুধ ঘন হয়ে আসবে। সেমাই সিদ্ধ হয়ে গেলে মালাই দিয়ে দিন। জাফরান দিন। এরপর ভালো করে মিশিয়ে চুলা বন্ধ করে ফেলুন। এবার ছোট ছোট বাটিতে এই ক্ষীর সাজান। এরপর ফ্রিজে রেখে সেট হতে দিন। সেট হলে বাদাম ও কিসমিস ছিটিয়ে পরিবেশন করুন মালাই ক্ষীরের সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

জর্দা সেমাই রেসিপি

সেমাই ১ প্যাকেট, চিনি ২ কাপ, নারকেল কুড়া ১ কাপ, কিসমিস ২ টেবিল চামচ,  বাদাম (ভাজা) ৩ টেবিল চামচ, দারুচিনি ৩ টুকরো,তেজপাতা ২টা, ঘি ৪ টেবিল চামচ, পানি ২ কাপ, লবণ পরিমান মতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে চুলায় কড়াই বসান। এরপর কড়াইতে ঘি দিয়ে গরম করুন। ঘি সামান্য গরম হলে ঘি দিন। এবার প্যাকেট সেমাইয়ের অর্ধেকটা ঘিয়ে ঢেলে দিয়ে ১০/১৫ মিনিট নাড়ুন যাতে সেমাইটা ঘিয়ে ভাজা হয়। এবার এতে কুড়ানো নারকেল দিয়ে নাড়তে থাকুন।কিছুক্ষণ পর পানি দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে নাড়তে থাকুন। পানি শুকিয়ে আসলে বাদাম, কিসমিস, তেজপাতা, দারুচিনি দিয়ে ১০ মিনিট জালে দমে রাখুন। ঝরঝরে হয়ে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার জর্দা সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

শন পাপড়ি সেমাই রেসিপি

উপকরণ : সেমাই ১ প্যাকেট, ঘি আধা কাপ, চিনি আধা কাপ, কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ, বাদাম কিসমিস পছন্দ মতো,গুঁড়ো দুধ ২ টেবিল চামচ।

প্রণালী : একটি ননস্টিক পাত্রে ঘি গরম করে নিন। সেমাই ছোট ছোট করে ভেঙে গরম ঘিয়ে দিয়ে মৃদু আঁচে ঘন ঘন নাড়তে থাকুন। সেমাই লালচে হয়ে এলে এতে চিটি,কনডেন্সড মিল্ক ও বাদাম কিসমিস মিশিয়ে আঠালো হওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। এবার চুলার আঁচ বন্ধ করে সহনীয় ঠান্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। একটি সমান ট্রেতে সামান্য ঘি মেখে সেমাই গুলো ঢেলে চেপে চেপে সমান করে নিন। ফ্রিজে এক ঘন্ট জমাট বাঁধার জন্য রেখে দিন। এরপর ছোট ছোট টুকরো করে কেটে দুধের গুঁড়ো ছিটিয়ে দিলেই তৈরি হয়ে যাবে শন পাপড়ি সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

সেমাই রেসিপি কেক সেমাই

উপকরণ : সেমাই ১ প্যাকেট, তেল আধা কাপ, ডিম ৪টি, বাটার ১০০ গ্রাম, দুধ ১ কাপ, চিনি দেড় কাপ, বেকিং পাউডার ২ টেবিল চামচ, কাজু, কিসমিস পছন্দ মতো, চেরি ফল সাজানোর জন্য।

প্রণালী : তেল দিয়ে সেমাই হালকা বাদামি করে ভেজে রাখুন। ডিম গুলো ভালো করে ফেটিয়ে নিন। এর সঙ্গে বাটার, চিনি ও দুধ মিশিয়ে আবার ফেটতে থাকুন। এবার মিশ্রণের সঙ্গে সেমাই,বেকিং পাউডার ও কাজু কিসমিস মিশিয়ে নিন। কেকের পাত্রে হালকা তেল মেখে সেমাই মিশ্রণটি ঢেলে ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ৪৫ মিনিট বেক করুন । ওভেন না থাকলে চুলায় তাওয়ার ওপরে পাত্রটি রেখে মৃদু আঁচে ঢেকে এক ঘন্টা অপেক্ষা করুন । হয়ে গেলে সার্ভিং ডিশে চেরি দিয়ে পরিবেশন করুন মজার কেক সেমাই রেসিপি।

সেমাই রেসিপি

নারিকেল দুধে তৈরি সেমাই রেসিপি

উপকরণ : হাতে তৈরি সেমাই ১ কাপ, নারিকেল দুধ ৪ কাপ, গরুর দুধ ১ কাপ, দারুচিনি ৪ টুকরো, এলাচ ৪ টি, গুড় ১ কাপ, ঘি ২ টেবিল চামচ, বাদাম, কিসমিস পছন্দ মতো।

প্রণালী : ঘিয়ে সেমাই ভেজে রাখুন। মৃদু আঁচে একটি পাত্রে সব উপকরণ মিশিয়ে নাড়তে থাকুন। দুধ ফুটে উঠলে তাতে ভেজে রাখা সেমাই দিয়ে দিন। সিদ্ধ হয়ে এলে চুলায় আঁচ বন্ধ করে দিন। বাটিতে ঢেলে ফ্রিজে ঠান্ডা হওয়ার জন্য রাখুন। ঠান্ডা হলে পরিবেশন করুন মজার নারিকেল দুধের সেমাই রেসপি।

96 total views, 2 views today

এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন