গরুর বিরিয়ানি রেসিপি রান্না করুন সবচেয়ে সহজ উপায়ে

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি রান্না করুন সবচেয়ে সহজ উপায়ে
5 (100%) 6 votes

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি ভোজন রসিক সহ আমাদের অনেকেরই প্রিয় খাবার। বাংলাদেশ, ভারত ও মিয়ানমারে বিরিয়ানি জনপ্রিয় একটি খাবার গরুর বিরিয়ানি রেসিপি । এটি এক বিশেষ প্রকারের খাবার যা সুগন্ধি চাল, ঘি, গরম মশলা এবং মাংস মিশিয়ে রান্না করা হয়। মুরগী, খাসি, গরু এমনকি হরিণের মাংস দিয়েও রান্না করার হয় এই খাদ্য। সাধারনত বিশেষ অনুষ্ঠানে অতিথি আপ্যায়নেই পরিবেশিত হয়। আর কে না জানে যে বিরিয়ানি ব্যাতিত আমাদের দেশের উৎসব অনুষ্ঠান গুলো একেবারেই জমে না ! বিশেষ করে চিকেন বিরিয়ানি বা ( Beef Biryani Recipe ) গরুর বিরিয়ানি রেসিপি । অনেকে ঝামেলার কারনে ঘরে বিরিয়ানি তৈরি করতে চাননা। আসুন জেনে নেই কিভাবে ঘরে বসে সহজেই তৈরি করবেন গরুর বিরিয়ানি রেসিপি ।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি তৈরির উপকরন সমুহ

গরুর মাংস = ১ কেজি
পোলাওয়ের চাল = দেড় কেজি
টক দই = ২ কাপ
কাঁচা মরিচ = ৮/১০ টি
শুকনা মরিচের গুড়া = ২ চা চামচ
আলু = ১০/১৫ টুকরা
আদা বাটা = ১ টেবিল চামচ
রসুন = বাটা দেড় টেবিল চামচ
শাহি জিরা বাটা = ২ চা চামচ
জিরা বাটা = ১ চা চামচ
জয়ফল ও জয়ত্রী বাটা = ১ চা চামচ
গরম মসলার গুড়া = ১ চা চামচ
দারচিনি = ৩/৪ টুকরা
এলাচ = ৫/৬ টি
লবঙ্গ = ২/৩ টি
গোলমরিচ = ১০/১২ টি
আলু বোখারা = ১০ টি
জাফরান = সামান্য
কিসমিস = ২ টেবিল চামচ
কাঠবাদাম = ১২/১৫ টি (হালকা ভেঁজে বেঁটে নেওয়া)
পেঁয়াজ বেরেস্তা = ১ কাপ
ধনে গুড়া = ১ চা চামচ
ফুটন্ত পানি = ৭ কাপ
কেওড়া পানি = পরিমান মত
ঘি = ৩/৪ টেবিল চামচ
লবন = স্বাদ মত এবং
তেল = পরিমান মত।

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি তৈরি পদ্ধতি

প্রথমে মাংস বড় বড় টুকরো করে কেটে ধুয়ে পানি ঝারিয়ে নিন। তারপর আদা-রসুন বাটা, টক দই, শাহি জিরা বাটা, মরিচের গুড়া, জয়ফল-জয়ত্রী বাটা, জিরা গুড়া, ধনে গুড়া, দারচিনি, লবঙ্গ, অর্ধেক পেয়াজের বেরেস্তা, কালো এলাচ-গোলমরিচ-সাদা এলাচ-কাঠবাদাম বাটা এবং গরম মসলার গুড়া দিয়ে মেখে ৩/৪ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন।

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি

তারপর কড়াইয়ে তেল গরম করে আস্ত গরম মসলা হালকা ভেঁজে অল্প পানিতে মাংস কষিয়ে নিতে হবে। হলুদ ও সামান্য লবন দিয়ে আলু মেখে প্যানে তেল দিয়ে ভেঁজে মাংসের মধ্যে দিয়ে দিন। মাংস মাখা মাখা হয়ে তেল উপরে উঠে আসলে নামিয়ে ফেলুন।

এখন অন্য একটি হাড়িতে ঘি গরম করে বাকি আস্ত গরম মসলা দিয়ে হালকা ভেঁজে চাল ও বাকি বেরেস্তা দিয়ে ভাজতে থাকুন। তারপর আলু বোখারা, চিনি ও কিসমিস দিয়ে দিন। চাল ভাজা হয়ে গন্ধ বের হলে ফুটন্ত গরম পানি দিয়ে দিন।

এবার মাংস ঢেলে দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে দিন। পানি শুকিয়ে চাল আধা সিদ্ধ হলে জাফরান গুলানো দুধ দিয়ে ঢেকে দিন। কিছুক্ষন পরে হাড়ি নামিয়ে একটি তাওয়া চুলার উপরে দিয়ে বিরিয়ানির হাড়ি বসিয়ে দিন।

১৫/২০ মিনিট পরে ঢাকনা সরিয়ে বিরিয়ানি নেড়ে দিন। এরপর আস্ত কাঁচা মরিচ ও কেওড়া জল দিয়ে আরও ১০ মিনিট দমে রেখে দিন। ব্যাস সহজেই তৈরি হয়ে গেলো গরুর বিরিয়ানি রেসিপি । এবার পেঁয়াজ বেরেস্তা ছাড়িয়ে দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন গরুর বিরিয়ানি রেসিপি ।

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি (নবাবি বিরিয়ানি)

 

উপকরণ

বিরিয়ানি মসলা-পেঁয়াজ বাটা ৩ টেবিল চামচ,
রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ,
আদা বাটা ১ টেবিল চামচ,
জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ,
গরম মসলা বাটা ১ টেবিল চামচ,
গোলমরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ,
মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,
বাদাম বাটা ১ টেবিল চামচ,
শাহ জিরা বাটা কোয়ার্টার চা চামচ ও পানি ১ কাপ।
মাংস রান্নার জন্য
গরুর মাংস (ছোট টুকরো করে কাটা),
সরিষার তেল ৩ টেবিল চামচ,
ঘি ৩ টেবিল চামচ,
পেঁয়াজ ১ কাপ,
টমেটো পিউরি ১ টেবিল চামচ,
টক দই ৩ টেবিল চামচ,
মিষ্টি দই ২ টেবিল চামচ,
বেরেস্তা বাটা ২ টেবিল চামচ,
কাঁচামরিচ লাল ও সবুজ ৫-৬টি,
লবণ ও চিনি স্বাদমতো।
বিরিয়ানির জন্য পোলাও চাল ৩ কাপ,
সরিষার তেল ৩ টেবিল চামচ,
ঘি ৩ টেবিল চামচ,
পানি ৬ কাপ,
আস্ত গরম মসলা (এলাচ ২টি, দারচিনি ২টি)
আলু বোখারা ৬-৭টি,
লাল-সবুজ কাঁচামরিচ ১০-১২টি,
মাওয়া আধা কাপ,
বাদাম কুচি (পেস্তা, কাঠবাদাম কুচি),
কিশমিশ ১ টেবিল চামচ,
বেরেস্তা ১ কাপ,
আলু (কিউব করে কেটে লবণ দিয়ে মেখে ঘি দিয়ে ভাজা),
ঘন দুধ ১ কাপ,
জাফরান ১ চিমটি,
কেওড়া জল ১ টেবিল চামচ,
লেবু ১টি,
টমেটো ১টি,
লবণ ও চিনি স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি –  গরুর বিরিয়ানি রেসিপি (নবাব বিরিয়ানি) তৈরি করতে প্রথমেই গরুর মাংসে টক-মিষ্টি দই ও লবণ মেখে রেখে দিতে হবে। মসলার সব উপকরণ একসঙ্গে নিয়ে ছেঁকে নিতে হবে। এবার কড়াইতে তেল ও ঘি গরম করে পেঁয়াজ বাদামি করে ভেজে টমেটো পিউরি ও মাংস দিয়ে কষিয়ে ছেঁকে নেওয়া মসলার পানি দিয়ে নেড়ে ঢেকে রান্না করতে হবে। এবার হাঁড়িতে পানি, তেল, ঘি, ছেঁকে নেওয়া পানি, আস্ত গরম মসলা, কাঁচামরিচ, লবণ ও চিনি দিতে হবে। পানি ফুটে উঠলে চাল দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিতে হবে।

মাংসে বেরেস্তা বাটা ও কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে দিতে হবে ও পোলাও মৃদু আঁচে ২০ মিনিটের জন্য ঢেকে রান্না করতে হবে। একটি বাটিতে মাওয়া, কিশমিশ, বাদাম মিশিয়ে নিতে হবে। জাফরান দুধ ও কেওড়া মিশিয়ে নিতে হবে। এবার পোলাও কিছু উঠিয়ে মাংস, আলু, বেরেস্তা, আলুবোখারা, কাঁচামরিচ ও দুধ-পোলাও এভাবে কয়েকটা লেয়ার দিয়ে বাকি দুধ দিয়ে ৩০ মিনিট দমে রাখলেই প্রস্তুত হয়ে যাবে গরুর বিরিয়ানি রেসিপি (নবাব বিরিয়ানি) । এবার নেড়ে পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

 

গরুর বিরিয়ানি রেসিপি (শাহি বিরিয়ানি)

বাসমতি চাল দিয়ে বিরিয়ানি রাঁধতে অনেকেই পারেন না। কারণ অনেকেরই বিরিয়ানি বেশি নরম হয়ে যায়, কারো আবার চাল সেদ্ধ হয় না। যারা এ ধরনের সমস্যায় পড়েছেন তারা এ রেসিপিটি অনুসরণ করুন। এতে সহজেই হয়ে যাবে বাসমতি চালের মজাদার শাহি গরুর বিরিয়ানি রেসিপি ।

যা যা লাগবে –  ১। গরুর মাংস ১/২ কেজি ২। বাসমতি চাল ২ কাপ ৩। কালো এলাচ ২ টা ৪। সাদা এলাচ ৪-৫ টা ৫। লং ৫-৬ টা ৬। গোলমরিচ ৮-১০টা ৭।কাবাব চিনি ৩-৪টা ৮। দারুচিনি ১টা ৯। তেজপাতা ১-২টা ১০। ধনে গুঁড়ো ১/২ চা চামচ ১১। আস্ত জিরা ১/২ চা চামচ ১২। জয়ফল-জয়ত্রি গুঁড়ো ১/২ চা চামচ ১৩। মরিচ গুঁড়ো ১/২ চা চামচ ১৪। লবণ স্বাদ মত ১৫। দই ১/২ কাপ ১৬। কেওরা জল ২ চা চামচ ১৭। তেল পরিমাণমতো ১৮। পেঁয়াজ কুচি ১/২ কাপ ১৯। আদা বাটা ১ টেবিল চামচ ২০। রসুন বাটা ১/২ টেবিল চামচ ২১। কাঁচা মরিচ ৭/৮টা ২২। ঘি ২-৩ চা চামচ ২৩। লেবুর রস ১ টেবিল চামচ ২৪। পেঁয়াজ বেরেস্তা অল্প ২৫। চিনি সামান্য

যেভাবে বানাবেন গরুর বিরিয়ানি রেসিপি (শাহি বিরিয়ানি)

১। প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি সোনালি করে ভেজে মাংস সহ (দই, চিনি, কেওড়া জল, ঘি, পেঁয়াজ বেরেস্তা, কাঁচা মরিচ বাদে) সব মশলা দিয়ে কষিয়ে রান্না করতে হবে।

২। রান্না শেষের দিকে দই, চিনি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ রান্না করে ঝোল মাখা মাখা হলে নামিয়ে ফেলতে হবে। এবার অন্য একটি প্যানে বা রাইস কুকারে বাসমতি চাল, স্বাদমত লবণ, ২ চা চামচ ঘি, লেবুর রস আর পরিমাণ মতো পানি দিয়ে রাইস রান্না করে নিতে হবে।

৩। রাইস রান্না হয়ে গেলে কিছু রাইস তুলে নিয়ে বিফ ঢেলে দিয়ে পেঁয়াজ বেরেস্তা, ঘি, কাঁচা মরিচ ছিটিয়ে দিয়ে বাকি রাইসটা ওপর থেকে দিয়ে দমে দিতে হবে ২০-৩০ মিনিটের মতো। রাইস কুকারে করলে অন করে দিতে হবে।

৪। প্রায় ২০-৩০ মিনিট পর রাইসটা হাল্কা মিক্স করে নিলে হয়ে যাবে মজার বিফ বিরিয়ানি। চুলায় করলে কম আঁচে দম দিতে হবে। বিশেষ দ্রষ্টব্য যেহেতু চালে আমরা তেল দিচ্ছি না তাই মাংসে পর্যাপ্ত তেল দিতে হবে। মাংসে লবন থাকবে, এ জন্য চালে লবণটা অল্প দিতে হবে।

373 total views, 2 views today

এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন